Saturday, 15 December 2012

মৌণ সঙ্গীত-২৭

 আজকের বিষয়ঃ প্রকৃতি এবং শীল্প
 Photobucket
ইনকাদাতে জাপানের আওমরি প্রিফেকচার এর একটি গ্রামের নাম। মাত্র ৮৭০০ জন লোকের এই গ্রামটি একটি বিশেষ কারণে সাড়া পৃথিবীতে পরিচিতি লাভ করেছে। সেটি হলো ধান ক্ষেতের ছবি। না, কৃষকেরা এই ছবি তৈরীতে কোন রং ব্যবহার করে না। আসলে এই চিত্রকর্মের মূলে যে বিষয়টা আছে, তা হচ্ছে বিভিন্ন রংয়ের ধানের ব্যবহার।এই গ্রামটির কৃষকেরা ১৯৯৩ সাল থেকে তাদের জমিতে বিভিন্ন রংয়ের ধান লাগিয়ে ধান ক্ষেতটিকে একটি ছবির মতো করে তোলে।
কৃষকেরা সাধারণতঃ হালকা বেগুনী এবং হলুদ পাতার (কোদাইমাই ধান) ধানের সাথে লোকাল গাঢ় সবুজ রংয়ের (সুগারু রোমান ধান) যে ধান আছে তা ব্যবহার করে। যখন বিভিন্ন রংয়ের ধান গাছ গুলো বড় হয় তখন পুরো মাঠ জুড়ে ফুটে উঠে আর্শ্চয জনক এই ছবি। প্রতি বছরই ছবির বিষয় বস্তু পরিবর্তন করা হয়। আর এ ছবি দেখতে সাড়া পৃথিবী থেকে ছুটে আসে মানুষ। কোন এক বছর এসেছিলো প্রায় ১,৫০,০০০ জন। প্রতি বছর মে মাসের দিকে এই চিত্রর্কমটি শুরু হয়। আর ধান কাটা হয় সেপ্টেম্বর মাসে।
সেনগাকু পিরিয়ডের অশ্বারোহী যোদ্ধার ছবি…
Photobucket
ছবিটি কাছ থেকে দেখলে যেমন মনে হয়…
Photobucket
আরো কাছ থেকে…
Photobucket
নিচে ধান লাগান হচ্ছে।
Photobucket
ধীরে ধীরে ছবি ফুটে উঠছে।
Photobucket
Photobucket
২০০৭ সালে জাপানের বিখ্যাত দুইটি হকুসাই চিত্রের আদলে করা হয় এই ধানক্ষেতের চিত্রর্কমটি। সত্যিকারের হকুসাই ছবি দুইটি…
Photobucket
Photobucket
এতে চারটি ভিন্ন জাতের ধান ব্যবহার করা হয়। চলুন তাহলে দেখে আসি সেই বিখ্যাত কাজের কিছু দুর্লভ মুহুর্তঃ
Photobucket
২০০৭ সালের সেই ছবির ধান কাটার জন্য প্রায় ৯০০ জন স্বেচ্ছাসেবক যোগ দেয়।
Photobucket
Photobucket

এই ইনকাদাতে গ্রামের দেখাদেখি জাপানের অন্যান্য বেশ কিছু গ্রামেও এ বিষয়টি বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। প্রচলন শুরু হয়েছে ইয়ামাগাতা, আইচি প্রিফেকচারে।
ইয়ামাগাতা-র আরেকটি ছবি…
Photobucket
কৃষকেরা মাঠে মোনালিসাকেও একেঁছিলো…
Photobucket
তবে সবচেয়ে আশ্চর্যজনক বিষয় হচ্ছে কৃষকেরা এই চিত্র কর্ম তৈরী করতে কোন আধুনিক টেকনোলজি ব্যবহার করেন না। চিত্রকর্মের এই বিষয়টি দিন দিন হয়ে উঠছে জাপানের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি।
এ বছর কিন্তু এখনো ধান কাটা হয়নি। তাই যদি দেখতে চান যেতে পারেন ইনকাদাতে গ্রামে। সবাই ভালো থাকবেন, সবার জন্য শুভেচ্ছা।
(তথ্যসূত্রঃ ইন্টারনেট)

No comments:

Post a Comment

Thank you very much for your comments.